বার্ষিক সাধারণ সভা ২০১৬-২০১৭ অনুষ্ঠিত।

ঢাকা ইউনিভার্সিটি অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশনের বার্ষিক সাধারণ সভা ২০১৬-২০১৭ গত ২২ এপ্রিল ২০১৭ শনিবার বিকেল ৩:৩০ মিনিট থেকে সন্ধ্যা ৬:১৫ মিনিট পর্যন্ত অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি জনাব এ. কে. আজাদ-এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়। ধর্মগ্রন্থ থেকে পাঠের মধ্য দিয়ে সাধারণ সভার কাজ শুরুর পর শোক প্রস্তাব উপস্থাপন করেন অ্যাসোসিয়েশনের সহ-সভাপতি মুনিরা খান। স্বাগত বক্তব্য দেন কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য এবং অর্থ সাব-কমিটির আহ্বায়ক আনোয়ারুল আলম চৌধুরী পারভেজ। গত ২৩ এপ্রিল ২০১৬ বার্ষিক সাধারণ সভার কার্যবিবরণী উপস্থাপন করেন সাংগঠনিক সম্পাদক এ. কে. এম আফজালুর রহমান বাবু। গত এক বছরের বার্ষিক কার্যবিবরণী উপস্থাপন করেন অ্যাসোসিয়েশনের মহাসচিব রঞ্জন কর্মকার এবং নিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন (জানুয়ারি-ডিসেম্বর ২০১৬) উপস্থাপন করেন কোষাধ্যক্ষ দেওয়ান রাশিদুল হাসান। উপস্থাপিত বার্ষিক কার্যবিবরণী ও আর্থিক প্রতিবেদনের উপর সদস্যগণ আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন।
সম্মানিত সদস্যদের আলোচনার পর উত্থাপিত বার্ষিক কার্যবিবরণী এবং নিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন সাধারণ সভায় উপস্থিত সদস্যগণ করতালির মধ্যদিয়ে অনুমোদন করেন।
এর পরবর্তীতে বক্তব্য রাখেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মাননীয় উপাচার্য অধ্যাপক ড. আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাক্তন উপাচার্য ইমেরিটাস অধ্যাপক ড. এ. কে. আজাদ চৌধুরী, প্রাক্তন সভাপতি জনাব রকীবউদ্দীন আহমেদ এবং সিন্ডিকেট সদস্য জনাব এস. এম বাহালুল মজনুন চুন্নু।
সভার সভাপতি জনাব এ. কে. আজাদ আগামী এক বছরের কর্মপরিকল্পনার একটি সারসংক্ষেপ তুলে ধরেন এবং সকলের সহযোগিতা কামনা করেন। অ্যাসোসিয়েশনের কার্যকরি কমিটির সদস্য সেলিনা খালেক সকলকে ধন্যবাদ জানান। বার্ষিক সাধারণ সভা সঞ্চালনা করেন যুগ্ম মহাসচিব জনাব আশরাফুল হক মুকুল। সাধারণ সভায় এক পর্যায়ে অ্যাসোসিয়েশনের মহাসচিব রঞ্জন কর্মকার বর্তমান কার্যনির্বাহী কমিটির সকল সদস্যকে পরিচয় করিয়ে দেন।
সাধারণ সভা শেষে উপস্থিত সদস্যরা মেতে উঠেন বৈশাখী আড্ডায়। বৈশাখী আড্ডা শেষে সাংস্কৃতিক সম্পাদক মাহফুজা রহমান চৌধুরী বাবলীর পরিচালনায় এবং রেহানা পারভীন-এর উপস্থাপনায় শুরু হয় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান বাংলার গান। সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে নৃত্য পরিবেশন করেন মহুয়া মুখোপধ্যায়, পিয়াঙ্কা রাসেল এ্যানেস ও তার দল এবং বাংলার গান পরিবেশন করেন চন্দনা মজুমদার, সন্দীপন দাস, শফী মন্ডল ও অমিতাভ মুখোপধ্যায়। মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানটি শেষ হওয়ার পর সকলে রাতের খাবারে মিলিত হন।


Pin It on Pinterest